সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

পোস্টগুলি

Bengali Poetry লেবেল থাকা পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

কবিতার হারানো খাতা/ Bengali Poetry

 নিঝুম রাত, নিঘুম রাত, তোমার আমার একলা হয়ে যাওয়ার রাত। এই অনন্ত বিরহ শুধু তোমার - আমার।  জানালা দিয়ে দু ' হাত বাড়িয়ে স্পর্শ করতে চাই বৃষ্টির জলের মতো তোমার চোখের জলের অভিমান। পূর্বজন্মের স্মৃতি খুঁজে নিয়েছি আমি। চলে যেতে চাই বাস্তবের অলৌকিক আলো- ছায়া মায়াজাল কেটে । পুরনো হয়ে যাওয়া ভিটের পাশে কুয়াশা মাখা  স্মৃতিপথে হেঁটে চলে যেতে চাই আমি।

কবিতার কারিকুরি : কবিতা সিরিজ / Bengali Poetry

অশ্লেষা  কয়েকশো শব্দের মধ্যে কয়েকজন কয়েকডজন কথা থাকে। কি থাকে কথার মধ্যে, থাকে যে প্রেমের কথা,জীবনের কথা,শব্দের কথা,শব্দগুলো জুড়ে জুড়ে কথার জন্ম।  একটা অক্ষরের শেষের শব্দের ছিঁটেফোঁটার সঙ্গে এল মুক্ত হয়, ছিঁটেফোঁটা যার ছিঁটে আর ফোঁটা থাকে না, আলোর ক্ষেতে চলে যায়।   আলো ফুলে ফুলে ওঠে, জল দুলে দুলে ওঠে, কান্নার রোল ভুলে ভুলে ওঠে, ঠোঁটের আদরের কোলের সময় আশ্লেষে যেন ছুঁয়ে ছুঁয়ে তখনকার ভালোলাগার মুহূর্তগুলোকে। অশ্লেষা নক্ষত্রের জন্ম হয়, যৌনতার গভীর থেকে ভালোবাসার জন্ম হয়,  নক্ষত্রের গভীর থেকে আদরের ছড়িয়ে পড়া নীতিকথার জন্ম হয়,  একটা অক্ষর আর শব্দের মিশেলে যৌন- পবিত্রতার জন্ম হয়, শব্দ আর কথার মিশেলে অশ্লেষা নক্ষেত্রের জন্ম হয়। রানীবালা গোছানো জোনাকিতে আলো - আঁধারের ফাঁকে ফাঁকে হালকা হাতের স্পর্শের মতো রানীবালার হৃদয়ে ছুঁয়ে যায় টুকরো দাঁতের দংশন। প্রথম নষ্ট গর্ভের মতো করে, প্রথম হারানো সন্তানের আদর।  রানীবালা, দেবদারু গাছের খাঁজের মধ্যে তোমার যে সত্ত্বা আছে, তাকে টুকরো টুকরো করে আস্ত একটা মাজানে ভাসিয়ে দাও।  মুহুর্ত যখন তোমার হাতের উপর হাত রাখ